কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

কবিতা (আষাঢ় ১৪২৪)

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলা
মো. জুন্নুন আলী প্রমাণিক*

অমর মহান জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ডাকে,    
স্বাধীন স্বদেশে আনন্দ ফোটে দেশবাসীর মুখে।
সবুজ কোমল গাছের পাতা তরুতাজায় ভরে,
ফুলের সুগন্ধ বাতাসে নাচে স্বাধীনতার জোরে।
পরের চোখের বাঁকানো দৃষ্টি অসহনীয় হয়,
বাঙালি জাতির মুক্তির দিশা শেখ মুজিব দেয়।
হাজার জাতের পাখির কণ্ঠে অনুপ্রেরণা বাড়ে,
সবুজ বনের অবুঝ প্রাণ নির্ভাবনায় ঘোরে।
নদীর দুরন্ত গতির মতো অগ্রগতির যাত্রা,
দুতীরে সোনার ফসল ক্ষেতে উন্নয়নের বার্তা।
গাছের শোভিত শাখায় বসে রূপলহরি ভাসে,
জলের বুকের শীতল রসে দেশ মাতৃকা হাসে।
কামার কুমার কৃষক তাঁতি একাত্বতার বলে,
সোনার বাংলা গড়ার লক্ষ্যে নিশ্চয়তায় চলে।
ছয়টি ঋতুর রূপের মাঝে স্বাধীনতার বাসা,
ফলন মালার উদার মাঠে সফলতায় চাষা।
দেশীয় জাতের মাছের খেলা খালবিলের জলে,
সাগর নদীর প্রাণীর মেলা স্বাধীনতার ফলে।
বারোটি মাসের বিচিত্র কৃষি ঐশ্বর্যময় অতি,
বিশুদ্ধ সকল ফসলে জাগে কৃতজ্ঞতার স্মৃতি।
মানুষে মানুষে প্রীতির মালা ভালোবাসার মায়া,
প্রশান্তি বিলায় বায়ুর দোলা গাছপালার ছায়া।
একটি দেশের একটি জাতি সুশিক্ষা মুখি লক্ষ,
বলতে লিখতে বাংলা বুকে বাংলাদেশী দক্ষ।
বিদেশি শাসন শোষণ মুক্ত বাংলাভাষী ধন্য,
স্বপ্নের সোনার বাংলা মুগ্ধ বঙ্গবন্ধুর জন্য।

 

মাটি নিয়ে খেলা
অপু বড়ুয়া **

মাটি নিয়েই আমার যত খেলা
মাটির মাঝে ফোটাতে চাই ফুল
এ মাটিকে যারাই করো হেলা
আমি তাদের ভাঙাতে চাই ভুল।

কৃষক যখন মাঠে লাঙল চষে
গায়ের রঙটা তামাটে তার হয়
তোমরা তখন পাখার নিচে বসে
অনেক রকম মেধাই করো ক্ষয়।

মাটির মানুষ তাইতো হয়ে আমি
ফলাতে চাই রাশি রাশি ধান
চাই না হতে বাবু নামি দামি
কৃষি, লাঙল, জমিই আমার গান।


*গ্রাম : বিদ্যাবাগীশ, ডাকঘর ও উপজেলা : ফুলবাড়ী, জেলা : কুড়িগ্রাম **সহকারী প্রকৌশলী (গীতিকার বাংলাদেশ বেতার ও বিটিভি), বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ, বান্দরবান; ফোন- ০১৮১৮-৫৯২৭৪২


Share with :

Facebook Facebook