কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

কবিতা (কৃষিকথা ১৪২৩)


কৃষি বিপ্লব
ড. মো. আলতাফ হোসেন*

কৃষিবিদরা বাংলাদেশের গর্বিত সন্তান
খাদ্য চাহিদা পূরণে তাদের রয়েছে ব্যাপক অবদান।

সাত কোটি জনসংখ্যা থেকে হয়েছে সতের কোটি
রয়েছে তবুও খাদ্য নিয়ে জনমনে অনেক সন্তুষ্টি।

উদ্ভাবন করেছেন উচ্চফলনশীল ধান, আলু, ভুট্টা ও গম
ডাল, তেল ও চিনি ফসলে গবেষণা হয়েছে কিছুটা কম।

উদ্ভাবিত হয়েছে অনেক উচ্চফলনশীল আধুনিক জাত
খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনের এটিই হচ্ছে প্রথম ধাপ।

উদ্ভাবিত হয়েছে জাত- খরা, জলাবদ্ধতা ও লবণাক্ততা প্রতিরোধী
আর ফসল বিন্যাসে নতুন মাত্রা যোগ করেছে জাত স্বল্পমেয়াদি।

ধান, গম, ভুট্টা ও আলু ফসলে গবেষণার সাফল্য ঈর্ষান্বিত
আবার অন্যান্য ফসলের উদ্ভাবিত জাতগুলোও খুবই উন্নত।

উৎপাদিত হচ্ছে খাদ্যশস্য টনে লক্ষ-কোটি
উদ্ভাবিত আধুনিক প্রযুুক্তি জমিকে দিচ্ছে না ছুটি।

একক ফসল, মিশ্র ফসল আরও হচ্ছে চাষ-আন্তঃফসল
সাথী ফসল চাষ করে পূর্বেই করা হচ্ছে জমিকে দখল।

কৃষককুল রয়েছেন মাঠে রাত-দিন ফলাতে ফসল অবিরত
সম্প্রসারণবিদগণও সম্প্রসারিত করছেন প্রযুক্তি শত শত!

মৎস্য বিজ্ঞানীরা  উদ্ভাবন করেছেন পুকুরে মাছ চাষ ‘পাঙ্গাশ’
আরও উদ্ভাবিত হয়েছে প্রযুক্তি মিঠা পানিতে চিংড়ি চাষ।

মৎস্য চাষে রয়েছে বিজ্ঞানীদের আরও অনেক সাফল্য
তাদের অবদানের জন্য অবশ্যই তারা ধন্যবাদের যোগ্য।

প্রাণিসম্পদ বিজ্ঞানীরা করেছেন প্রযুক্তি পশু মোটাতাজাকরণ
মাংস ও দুগ্ধ উৎপাদনে তাদের অবদানকে রাখতেই হবে স্মরণ।

মাংস উৎপাদনে জুড়ি নেই প্রযুক্তি-মুরগির ব্রয়লার
ডিম উৎপাদনেও তুলনাহীন প্রযুক্তি-মুরগির লেয়ার।

কৃষি উন্নয়নে রয়েছে বিজ্ঞানীদের অবদান হাজারো হাজার
দেশবাসীকে তাদের অবদানের স্বীকৃতি দেয়া উচিত বারংবার।

ধন্য বাংলার কৃষিবিদ ও কৃষক, ধন্য তোমাদের অবদান
স্মৃতি হয়ে থাকবে তোমরা এই বাংলায়, হবে না কখনো অম্লান!

পুষ্টি
কৃষিবিদ ড. মো. শাহ কামাল খান**

পুষ্টি উপাদান ছয় প্রকারের
শর্করা, আমিষ, চর্বি
পানি, খনিজ ও ভিটামিন,
পুষ্টি উপাদানসমূহ অত্যাবশ্যকীয়
খাবারের ম্যানুতে সবার উপস্থিতি
থাকতে হবে প্রতিদিন।

নানা উপাদানের নানা কাজ
শর্করা ও চর্বি মিলে
দেহে শক্তি জোগায়,
আমিষ সাহায্য করে
শরীর গঠনে
পানি অপরিহার্য-হজম বাড়ায়।

ভিটামিন ও খনিজ উভয়ে
বিভিন্ন রোগ হতে
দেহকে রক্ষা করে,
প্রয়োজন হয় স্বল্প পরিমাণে
তবে খেতে হয় প্রতিদিন
চাই সচেতনতা ঘরে ঘরে॥
*প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা (কীটতত্ত্ব), ডাল গবেষণা কেন্দ্র ও আঞ্চলিক কৃষি গবেষণা কেন্দ্র, ঈশ্বরদী, পাবনা। মোবাইল : ০১৭২৫০৩৪৫৯৫
**সিনিয়র মনিটরিং অ্যা- ইভ্যালুয়েশন অফিসার, সাইট্রাস ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট, ডিএই, খামারবাড়ি, ঢাকা


Share with :

Facebook Facebook