Wellcome to National Portal
কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৭ অক্টোবর ২০১৫

কৃষকদের জন্য প্রণোদনা ও পুনর্বাসন কর্মসূচি গ্রহণ


প্রকাশন তারিখ : 2015-10-04

প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত ১২টি জেলার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের পুনর্বাসন ও প্রণোদনা সহায়তা প্রদান করবে কৃষি মন্ত্রণালয়। পুনর্বাসন সহায়তার আওতায় ১২টি জেলার দুই লাখ ১২ হাজার ৬৭৯ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক চাষিকে রবি/২০১৫-১৬ মৌসুমে গম, ভুট্টা, সরিষা ও আলু আবাদের জন্য বীজ, সার বিনামূল্যে দেওয়া হবে। এজন্য সরকারের ২০ কোটি ৫৯ লাখ ৫৪ হাজার ৮৩০ টাকা ব্যয় হবে। এছাড়াও রবি ও খরিপ-১/২০১৫-১৬ মৌসুমে গম, ভুট্টা, খেসারি, ফেলন ও গ্রীষ্মকালীন মুগ চাষাবাদে উৎসাহিত করার জন্য আরো ১২টি জেলার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক চাষিদের প্রণোদনা সহায়তা কর্মসূচির আওতায় মোট ১১ কোটি ৮৯ লাখ ৭৭ হাজার ৬০ টাকার বীজ, সার বিনামূল্যে প্রদান করা হবে।
গত ১ অক্টোবর ২০১৫ তারিখে কৃষি মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে মাননীয় কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী এসব তথ্য জানান। মাননীয় কৃষিমন্ত্রী জানান, বগুড়া, রংপুর, গাইবান্ধা, কুড়িগ্রাম, সিরাজগঞ্জ, জামালপুর, শেরপুর, পাবনা, নওগাঁ, নাটোর, চট্টগ্রাম ও নোয়াখালী জেলার ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের জন্য গম, ভুট্টা, সরিষা ও আলু আবাদে উৎসাহ প্রদানের জন্য কৃষি মন্ত্রণালয় পুনর্বাসন সহায়তা প্রদান করবে। এ ছাড়া যশোর, নড়াইল, খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, বরিশাল, পিরোজপুর, ঝালকাঠি, পটুয়াখালী, বরগুনা, ভোলা ও গোপালগঞ্জ জেলার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের গম, ভুট্টা, খেসারী, ফেলন ও গ্রীষ্মকালীন মুগ চাষাবাদে উৎসাহিত করার জন্য প্রণোদনা সহায়তা প্রদান করা হবে। তিনি আরো জানান, গম, ভুট্টা ও সরিষা চাষাবাদে পরিবারপ্রতি সর্বোচ্চ এক বিঘা ও আলু চাষাবাদের জন্য পরিবার প্রতি সর্বোচ্চ ১০ শতক জমির জন্য বিনামূল্যে বীজ এবং ডিএপি ও এমওপি সার প্রদান করা হবে। এ দুই কর্মসূচিতে সরকারের ৩২ কোটি ৪৯ লাখ ৩১ হাজার ৮৯০ টাকা খরচ হবে বলে মাননীয় কৃষিমন্ত্রী জানান। পুরো অর্থের জোগান মন্ত্রণালয়ের নিজস্ব তহবিল থেকেই করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
সংবাদ সম্মেলনে রুটিন দায়িত্বপ্রাপ্ত কৃষি সচিব জনাব মোহাম্মদ নাজমুল ইসলাম, অতিরিক্ত সচিব ও বীজ উইংয়ের মহাপরিচালক জনাব আনোয়ার ফারুক, অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রসারণ) জনাব মো. মোশারফ হোসেন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মো. হামিদুর রহমান উপস্থিত ছিলেন।


Share with :

Facebook Facebook