কৃষি তথ্য সার্ভিস (এআইএস) গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার
মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৫ এপ্রিল ২০১৮

রাজশাহীর তানোরে আউশ প্রনোদনা উদ্বোধন করলেন মাননীয় সংসদ সদস্য


প্রকাশন তারিখ : 2018-04-22

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর তানোরের উদ্যোগে উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে খরিপ-১/২০১৮-১৯ মৌসুমের আউশ প্রণোদনা সহায়তার উদ্বোধন অনুষ্ঠান তানোর উপজেলা পরিষদ প্রেস ইমাম মোঃ এখলাসুর রহমান পবিত্র কোরআন তিলাওয়াতের মধ্য দিয়ে শুরু হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার তানোর মুহাঃ শওকত আলী এর সভাপতিত্বে আউশ প্রণোদনা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় সংসদ সদস্য (তানোর, গোদাগাড়ী) রাজশাহী-১, আলহাজ্ব ওমর ফারুক চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বন্দনা রারী সরকার।


অনুষ্ঠানের শুরুতেই  স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন, তানোর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মোঃ শফিকুল ইসলাম। তিনি বলেন, কৃষকের উন্নয়ন মানে দেশের উন্নয়ন বর্তমান কৃষি বান্ধব সরকার কৃষি পূর্নবাসন কর্মসুচীর আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে ধান উৎপাদন বৃদ্ধি লক্ষে উফসী আউশ ১৪৫০ জন ও নেরিকা আউশ ৩০০ জন মোট ১৭৫০ জন কৃষকের মধ্যে বিতরন করা হবে। ১ বিঘার উফসী আউশ এর জন্য ১ জন কৃষক পাবেন ০৫ কেজি বীজ, ২০ কেজি ইউরিয়া, ১০ কেজি ডিএপি, ১০ কেজি এমওপি এবং সেচ সহায়তা বাবদ ৫০০ টাকা এবং ১ জন কৃষক ১ বিঘা নেরিকা আউশ প্রনোদণার জন্য ০৫ কেজি বীজ, ২০ কেজি ইউরিয়া, ১০ কেজি ডিএপি, ১০ কেজি এমওপি, সেচ সহায়তা বাবদ ৫০০ টাকা এবং আগাছা দমনের জন্য ৫০০ পাবেন। সেই লক্ষ্যে উপজেলায় মোট ১৭৫০ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষককে আউশ প্রনোদনা প্রদান করা হবে। এই সকল সরকারী প্রনোদনার সহায়তা কাজে লাগিয়ে আউশ ধানের আবাদ বৃদ্ধিতে এগিয়ে আসার জন্য তিনি উপস্থিত কৃষকদের অনুরোধ জানান।পরিশেষে তিনি অনুষ্ঠানে উপস্থিত সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।
 

প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, কৃষি বান্ধব সরকার কৃষকের উন্নয়ন হলে দেশ উন্নয়ন ও অগ্রগতির দিকে এগিয়ে যাবে এই কথা চিন্তা করে বর্তমান সরকার কৃষি উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে খরিপ-১/ ২০১৮-১৯ মৌসুমে আউশ প্রণোদনা প্রদান করছে। তিনি আরোও বলেন, শুধু প্রণোদনা নয় এই সরকার কৃষকের ভ্যাগের পরিবর্তনের জন্য ভুর্তকি দিয়ে বিভিন্ন কৃষি যন্ত্রপাতি প্রদান করছেন যেন কৃষকগন সাবলম্বী হতে পারে। দেশের খাদ্য ও পুষ্টি চাহিদা মিটাতে ধান উৎপাদনের পাশাপাশি বিভিন্ন ফলের বাগান স্থাপন করে কৃষকদের আরোও বেশী লাভবান হওয়ার উদাত্ত্ব আহবান জানান। পরিশেষে তিনি আউশ প্রনোদণা সঠিক ভাবে বাস্তবায়ন করে ধান উৎপাদন বৃদ্ধিতে ভ’মিকা রাখার আহবান জানিয়ে আউশ প্রনোদণার শূভ উদ্বোধন ঘোষনা করেন।


সভাপতি বলেন, ধান উৎপাদনে ভুগর্ভস্থ পানির চাপ কমানোর জন্য ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের আউশ প্রণোদনা প্রদান করা হচ্ছে। কৃষি বান্ধাব সরকার কৃষকের উন্নয়নের লক্ষে তানোরের ১৭৫০ জন কৃষকের মাঝে বিনা মূল্যে প্রনোদণা সহায়তা দিচ্ছে। জনসংখ্যা বৃদ্ধির ফলে বসত বাড়ি তৈরীর জন্য জমির পরিমান দিন দিন কমে যাচ্ছে ফলে বোরো ধানের পাশাপাশি আউশ ধানের চাষও ব্যাপক ভাবে বাড়াতে হবে। কারণ আউশ ধান চাষে উৎপাদন খরচ কম ও প্রাকৃতিক দুর্যোগের আশংকা কম থাকে। তিনি সকল কৃষকদের আউশ ধান চাষে প্রনোদনা সহায়তা কাজে লাগিয়ে উৎপাদন বৃদ্ধিতে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান। পরিশেষে তিনি সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিযে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করেন।
অনুষ্ঠানে উপজেলা প্রশাসন ও কৃষি অফিসের কর্মকর্তা-কর্মচারী, সাংবাদিক, রাজনীতিবিদ,প্রনোদণা গ্রহনকারী ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষক সহ প্রায় ১৯৫০ জন উপস্থিত ছিলেন।

 


Share with :

Facebook Facebook